ধর্ষণকারীদের এবং মদদদাতা / সহায়তাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

Human Chain on Moyna, Madhupur, Tangail (8)গত ৩ জারুয়ারী ২০১৩ তারিখে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট, বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক এবং কন্যাশিশু এ্যাডভোকেসি ফোরাম সম্মিলিতভাবে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে একটি মানববন্ধনের আয়োজন করে। নারীর প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং একজন কন্যাশিশুর ধর্ষকদের যথাযথ বিচারের দাবীতে ৪০ টিরও বেশী সংগঠনের প্রায় ৪০০ প্রতিনিধি এই সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন।

গত ৬ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে টাঙ্গাইলের মধুপুরবাসী নবম শ্রেণির ছাত্রী সাথী আক্তার ময়নাকে স্থানীয় একজন নারী একদল ধর্ষকের হাতে তুলে দেয়। এই ধর্ষকরা সাথীকে ৪ দিন আটকে রেখে ক্রমাগত ধর্ষণ করে এবং এই ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে।

৪ দিন পর এলাকাবাসী সাথীকে রেললাইনের ওপর অচেতন অবস্থায় আবিষ্কার করে । পরবর্তীতে সাথীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হসপিটালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়। সে এখন সেখানে নিবিড় ত্তাবধানে রয়েছে এবং শারীরিক চিকিৎসার পাশাপাশি তাকে মনোচিকিৎসাও দেয়া হচ্ছে।

এই ঘটনার ৭ দিন পরে স্থানীয় শালিসের মাধ্যমে সাথীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে কিছু টাকা প্রদানের প্রস্তাব দেয়া হয়। তার পরিবার এই ক্ষতিপূরণ নিতে অস্বীকার করে এবং স্থানীয় থানায় একটি মামলা দায়ের করে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে ধর্ষকরা উপযুক্ত প্রমানাদি সত্বেও আদালত থেকে জামিন পায়। ফলে দি হাঙ্গার প্রজেক্টসহ অন্যান্য প্রতিষ্টানসমূহ এই ঘটনার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে  ওঠে। তারা এই মানববন্ধনের মাধ্যমে সারাদেশের ধর্ষণকারী, ধর্ষণের সাথে জড়িত এবং সহায়তাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে এবং একইসাথে এক্ষেত্রে গণমাধ্যমের জোরালো ভূমিকা অব্যাহত রাখার জন্যও উদাত্ত আহ্বান জানায়।

দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ এর আয়োজনে আবশ্যকীয় পুষ্টিবার্তা শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

ena_thpbdগত ১৭-১৮ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট -বাংলাদেশ‘ আবশ্যকীয় পুষ্টি বার্তা’ শীর্ষক একটি প্রশিক্ষণের আয়োজন করে। প্রশিক্ষণটি পদক্ষেপ মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়।
মূলত এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে, বিশ্বব্যাপী অপুষ্ট গর্ভবতী নারী ও ২ বছর বয়সের নীচের শিশুদের অপুষ্টি দূর করার জন্য গৃহীত হাজার দিনের কর্মসূচী বাস্তবায়নের এই বৈশ্বিক আন্দোলনে যুক্ত হয় দি হাঙ্গার প্রজেক্ট।
হাঙ্গার প্রজেক্ট এর কর্মীসহ সারা দেশ থেকে ৫৬ জন নারী নেত্রী এই প্রশিক্ষণে অংশ নেন। উদ্দেশ্য হলো, আবশ্যকীয় পুষ্টি বার্তাসমূহ তৃণমূলের নারীদের কাছে পৌঁছে দেয়া যাতে তারা নারী ও শিশুর পর্যাপ্ত পুষ্টি গ্রহণের প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করতে পারেন এবং এই বার্তাসমূহ তাদের নিজস্ব এলাকার মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হন।