প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্যবার্তা শীর্ষক কর্মসূচি মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন

enaমা ও শিশুর অপুষ্টি রোধে আন্তর্জাতিকভাবে গৃহীত হাজার দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট- বাংলাদেশ ‘প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্য বার্তা’ শীর্ষক একটি প্রশিক্ষণ কর্মসুচি মে’ ২০১৩ থেকে বাস্তবায়নের কাজ শুরু করে।
এই প্রশিক্ষণ আয়োজনের উদ্দেশ্য হলো স্বেচ্ছাশ্রমে আত্মনিবেদিত তৃণমূলের নারীনেত্রীদেরকে, গর্ভবতী ও প্রসূতি মাযের পুষ্টি, নবজাতক ও শিশুর কাম্যমাত্রার খাবার এবং পুষ্টি ও পুষ্টিকণার গুরুত্ব সম্পর্কে ধারণা দেয়া এবং একই সাথে তাদের নেগোশিয়েশন, পরামর্শ প্রদান ও আন্তব্যক্তিক যোগাযোগের দক্ষতা বাড়ানো যাতে এই প্রশিক্ষিত নারীনেত্রীগণ তাদের এলাকার মা এবং পরিবারের অন্যান্য সদ্যদের প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে পরামর্শ দিতে পারেন। এই উদ্দেশ্যকে ধারণ করে ২০১৩ সালে সর্বমোট ৩৮ টি প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয় এবং এই প্রশিক্ষণসমূহে সর্বমোট ৬৫৬ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণ গ্রহণকালে নারীনেত্রীগণ মূলত : গর্ভকালীন সেবা, প্রসব পরবর্তী সেবা ও নবজাককের যত্ন , নবজাতক এবং শিশুর খাবার ও পুষ্টি, শিশুর বৃদ্ধি পরিবীক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান  এবং প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে ধারণা লাভ করেন।
প্রাথমিকভাবে ৪০ টি ইউনিয়নের মোট ৯০০০ গর্ভবতী ও প্রসূতি মায়েদের মধ্যে প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতা প্রদানের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৩ সালে ৩৭১ টি উঠান বৈঠকের মাধ্যমে মোট ৮৭৩০ জন গর্ভবতী ও প্রসূতি মা এবং তাদের পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কাছে এই বার্তাসমূহ পৌঁছে দেয়া হয়। পাশাপাশি গর্ভবতী ও প্রসূতি মাযেদের প্রয়োজনীয় পুষ্টি চাহিদা মেটানোর ক্ষেত্রে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরও যে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রয়েছে এই বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে উঠান বৈঠকে সবার কাছে তুলে ধরা হয়।