অত্যাবশ্যকীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্যবার্তা বিষয়ক উঠান বৈঠক, জানুয়ারী ২০১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

প্রয়োজনীয় পুষ্টি কার্যক্রম (The Essential Nutrition Action-ENA): মা ও শিশু স্বাস্থ্য সমস্যা বাংলাদেশের একটি মারাত্মক জনস্বাস্থ্য সমস্যা। যদিও বিগত দশকে বাংলাদেশে শিশুমৃত্যুর হার সন্তোষজনকভাবে কমেছে, এবং বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় আজও এই মৃত্যুর হার বেশি। মা ও শিশরু অপুষ্টি রোধে আন্ত র্জাতিকভাবে গৃহীত এক হাজার দিনের কর্মসূচির অংশ হিসেবে প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্যবার্তা বিষয়ক সহায়ক প্রশিক্ষণে আয়োজন করা হয়।

প্রশিক্ষণে গর্ভবতী ও প্রসূতি মায়ের পুষ্টি, নবজাতক ও শিশুর কাম্য মাত্রার খাবার এবং পুষ্টি ও পুষ্টি কণার গুরুত্ব সম্পর্কে ধারণা দেয়া হয়। এই প্রশিক্ষণে সহায়ক উপকরণ হিসেবে ফ্লিপচার্ট ব্যবহার করা হয়। ফ্লিপচার্টে আলোচনার বিষয়গুলো ছিল গর্ভবতী নারীর পুষ্টি, রক্তস্বল্পতা ও ম্যালেরিয়া প্রতিরোধ, বুকের দুধ খাওয়ানোর পদ্ধতি, বুকের দুধের পাশাপাশি বাড়তি খাবার সরবরাহ, অপুষ্টি প্রতিরোধ, স্যানিটেশন ও হাত ধোয়া সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য।

অত্যাবশ্যকীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্যবার্তা বিষয়ক উঠান বৈঠক: একজন মা গভর্ধারণ থেকে শুরু করে শিশুর দুই বছর বয়স পর্যন্ত সময়কালকে ১,০০০ দিন হিসেবে এই কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। মা ও শিশু পুষ্টির অবস্থা’ উনয়œনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবহারিক তথ্যসমহূ পরিবার ও সমাজে সবার কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে এই সচেতনতা বৃদ্ধির প্রচেষ্টা। অত্যাবশ্যকীয় পুষ্টি ও স্বাস্থ্যবার্তার্  বিষয়ক সহায়ক প্রশিক্ষণে ইউনিয়নের যে সকল নারীনেত্রী অংশগ্রহণ করেন তাদের পরিচালনায় প্রতি ওয়ার্ডে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

জানুয়ারী ২০১৭ ডিসেম্বর ২০১৮; সারাদেশে সাতটি অঞ্চলের ৮৬টি ইউনিয়নে প্রতিটি ওয়াডের্র এক বা একাধিক করে সর্বমোট ২১৩টি উঠান বৈঠক অনুিষ্ঠত হয়। যার মাধ্যমে গর্ভবতী মা, প্রসূতি মা ও অন্যান্য (স্বামী, শ্বশুর, শ্বাশুড়ি, ননদ, আপনজন ও প্রতিবেশী) সর্বমোট ৩৬৫১জন উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত হয়েছেন।

প্রশিক্ষণের প্রিন্টেড ফ্লিপচার্ট-এর সাতটি অধিবেশন দুই ভাগে ভাগ করে দুই দিনের সভায় স¤পূর্ণ করা হয়।

প্রশিক্ষণ ও উঠান বৈঠকের আলোচ্য সূচিসমূহ: ১. সূচনা পর্ব। ২. প্রাক যাচাই। ৩. প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য। ৪. মা ও শিশুর পুষ্টি উন্নয়নে নারীনেত্রীর ভূমিকা। ৫. অপুষ্টির চক্র। ৬. নারীর (গর্ভবতী) পুষ্টি। ৭. বুকের দুধ খাওয়ানোর উপকারিতা। ৮. শাল দুধসহ মায়ের দুধ দান। ৯. ০-৬ মাস শুধুমাত্র মায়ের দুধ পদ্রান। ১০. দুধ খাওয়ানোর সময় শিশুর সঠিক অবস্থান প্রদর্শন। ১১. আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান (নেগোসিয়েশন) এবং কেইস স্টাডি। ১২. শিশুর পরিপরূক(বাড়তি)খাবার। ১৩. অসুস্থ বা অপষ্টু শিশুর পুষ্টি ব্যবস্থাপনা। ১৪. পুষ্টিগুণ স¤পন্ন স্থানীয় পর্যায়ের খাবার চিহ্নিতকরণ। ১৫. প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি। ১৬. লাইভ কোচিং (অনুশীলনী উপস্থাপনা) । ১৭. পরিকল্পনা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.