নারী নেতৃত্ব বিকাশ কর্মসূচীর সংখ্যাতাত্ত্বিক সার-সংক্ষেপ প্রতিবেদন; জানুয়ারী-মার্চ- ২০১৯।

অঞ্চল ভিত্তিক ‘নারী নেতৃত্ব বিকাশ র্শীষক ফাউন্ডেশন কোর্স’ প্রশিক্ষণের চিত্র: জানুয়ারী-মার্চ ২০১৯
বিকশিত নারী নেটওয়ার্কে আয়োজনে এবং দি হাঙ্গার প্রজেক্ট এর সহায়তায় জানুয়ারী-মার্চ ২০১৯ সালে ২ টি নারী নেতৃত্ব বিকাশ বিষয়ক ফাউন্ডেশন কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। এতে খুলনা অঞ্চলের হারচয়েজ প্রজেক্ট এরিয়া ইউনিয়ন থেকে ৩০জনকে নিয়ে ২১০তম এবং রংপর অঞ্চলের হারচয়েজ প্রজেক্ট এরিয়া ইউনিয়ন থেকে ২৭জনকে নিয়ে ২১১তম ব্যাচে ২টি ব্যাচে ২টি প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মোট ৫৭ জন বলিষ্ঠ নারী বিকশিত নারী নেটওয়ার্কে নতুন যুক্ত হন।

বিষয়ভিত্তিক ধারাবাহিক প্রশিক্ষণ এবং সভা জানুয়ারী-মার্চ ২০১৯ :
দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ কর্ম এলাকার ১০টি অঞ্চলে জানুয়ারী-মার্চ ২০১৯ সর্বমোট ৬৮টি মাসিক ফলোআপ প্রশিক্ষণ এবং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে উপস্তিত নারীনেত্রীর সংখ্যা ৯৪৩জন। উপস্থিতি লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৯৯৮জন। জানুয়ারী-০৬টি, অংশগ্রহনকারী উপস্থিতির টার্গেট-১৩৯ জন নারীনেত্রী, অংশগ্রহনকারী উপস্থিতির সংখ্যা-৬৮ জন নারীনেত্রী, ফেব্রুয়ারী-৪৬টি, অংশগ্রহনকারী উপস্থিতির টার্গেট-১৪০৭ জন নারীনেত্রী, অংশগ্রহনকারী উপস্থিতির সংখ্যা-৬৪৬জন নারীনেত্রী, মার্চ-১৬টি, অংশগ্রহনকারী উপস্থিতির টার্গেট-৪৫২ জন নারীনেত্রী, অংশগ্রহনকারী উপস্থিতির সংখ্যা-২২৯ জন নারীনেত্রী)।

বিকশিত নারী নেটওর্য়াকের কমিটি সভা জানুয়ারী-মার্চ ২০১৯;
দি হাঙ্গার প্রজেক্ট- বাংলাদেশ কর্ম এলাকায় ২টি অঞ্চলে জানুয়ারী-ডিসেম্বর ২০১৯ সর্বমোট ১১টি বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের কমিটি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে, সভার অংশগ্রহনকারী উপস্থিত টার্গেট সংখ্যা ১৭৭ এবং অংশগ্রহনকারী উপস্থিত সংখ্যা ১৩৯জন। (কুমিল্লা ০৪টি, সভার অংশগ্রহনকারী উপস্থিত টার্গেট সংখ্যা ৫১জন , অংশগ্রহনকারী উপস্থিত সংখ্যা-৪১জন. ময়মনসিংহ-০৭টি সভার অংশগ্রহনকারী উপস্থিত টার্গেট সংখ্যা ১২৬ জন , অংশগ্রহনকারী উপস্থিত সংখ্যা-৯৮জন)

আর্ন্তজাতিক নারী দিবস:
“নারী পুরুষের সম-ভাবনা,নতুন দিনের সূচনা” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস-২০১৯ উদযাপন করা হয়। জাতিসংঘ থেকে নির্ধারিত প্রতিপাদ্য হলো- UN Women Theme for International Women’s Day, 8 March, is “Think equal, build smart, innovate for change”. | সারা দেশে ৯৮টি স্থানে দিবসটি উদযাপিত হয়েছে। উপস্থিত নারীর সংখ্যা ১২৮১৫জন এবং পুরুষের সংখ্যা ৫৪৯০জন সর্বমোট-১৮৩০৫। (তথ্যসূত্র-এমআইএস)

স্থানীয় সরকার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন-২০১৯:
আসন স্থানীয় সরকার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ২০১৯ সালে ৫টি ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সারাদেশে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট এর বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের নারীনেত্রীদের মধ্যে উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবং উপজেলা পরিষদ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অংশগ্রহন করেন প্রায় ৩০ জন নারীনেত্রী। তার মধ্যে ১জন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে (রংপুর সদর) এবং ১১জন নারীনেত্রী উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আসন নির্বাচনে বিজয়লাভ করেছেন।

এক নজরে নারীনেত্রীদের অর্জন জানুয়ারী- মার্চ ২০১৯;
বাল্যবিবাহ বন্ধ –৩৯ টি, যৌতুক প্রতিরোধ- ৪৭টি, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ, বিবাহ নিবন্ধন-২১, বিবাহ নিবন্ধন-১৩, নিরাপদ প্রসব-৫২, গর্ভবতী মায়ের টিকা-৫১৪ গর্ভবতী মায়ের ওজন-২৮৮, স্বাস্থ্য সম্মত পায়খানা-১০৮, টিউবওয়েল স্থাপন-২৭, আর্সেনিক পরীক্ষা-১২৫, বৃক্ষ রোপন- ৩৯৮৯, শিশু টিকা-মেয়ে শিশু-৩১২জন, ছেলে মিশু-২৬২জন, জন্মনিবন্ধন নারী-৪২১জন, পুরুষ-৩৮৭জন, প্রাথমিক স্কুলে ভর্তি মেয়ে-৫৯০,ছেলে-৪৪৬, ঝড়ে পড়া শিশু স্কুলে ভর্তি মেয়ে-২৩০, ছেলে-১৭৩, বয়স্ক শিক্ষা- নারী-৬৫২, পুরুষ ২৫৫, গর্ভবতী মা ও শিশুর পুষ্টি মেয়ে-৩০৬, ছেলে-৩২, গর্ভবতী মায়ের স্বাস্থ্য পরীক্ষা-নারী ১৭৭ মা, নবজাতক শিশুর ওজন মেয়ে ৩৪, ছেলে-৩০,আয় বৃদ্ধিমূলক কর্মসূচি নারী-১৬৫, পুরুষ-১৭৯, সংগঠন নারী ৭৭, পুরুষ-৫৫, দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ (২টি প্রশিক্ষণ) ১৮জন নারী। ((তথ্য সূত্র: এমআইএস

সারা দেশব্যাপী নারীনেত্রীরা নিজনিজ এলাকায় স্ব উদ্যোগে স্থানীয় পর্যায়ে বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছেন। নিন্মে নারীনেত্রীদের অর্জনগুলো তুলে ধরা হলো (জানুয়ারী-মার্চ-২০১৯)
সামাজিক উদ্যোগসমূহ: ১.বাল্যবিবাহ – প্রচারাভিযান ০২টি, উঠানবৈঠক ২৯৮টি মোট কার্যক্রম-৩০০টি মোট উপস্থিতি-৪৯৪৮জন। ২. যৌতুক-উঠান বৈঠক ২১৬টি, মোট কার্যক্রম-২১৬টি, মোট উপস্থিতি-৩৯৪১জন। ৩. বিবাহ নিবন্ধন- উঠান বৈঠক ৭৯টি, মোট কার্যক্রম-৭৯টি, মোট উপস্থিতি-১৫৩৪জন। ৪. জন্মনিবন্ধন- উঠান বৈঠক ১৯২টি, মোট কার্যক্রম-১৯২টি, মোট উপস্থিতি-৩৩১৭জন। ৫. নারী নির্যাতন ও যৌনহয়রানী বিষয়ক উঠান বৈঠক ১৫৭টি, মোট কার্যক্রম-১৫৭টি, মোট উপস্থিতি-২৭২৫জন। ৬. গর্ভবতী মায়ের যত্ন ও নিরাপদ মাতৃত্ব- উঠান বৈঠক ২৯১টি, মোট কার্যক্রম-২৯১টি, মোট উপস্থিতি-৫৭৭৬জন। ৭. প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ঝরেপড়া শিশুদের ভর্তি-প্রচারাভিযান ১৪২টি, উঠানবৈঠক ২০৪টি মোট কার্যক্রম-৩৪৬টি মোট উপস্থিতি-৬৬৬৩জন। ৮. বয়স্ক শিক্ষা-আলোচনা সভা ৭৩টি, মোট কার্যক্রম-৭৩টি মোট উপস্থিতি-১৬৬৫জন। ৯. হাতধোয়া ও স্বাস্থ্যকর পরিচর্যা এবং স্যানিটশন ও নিরাপদ পানি- উঠান বৈঠক ৫৪টি, মোট কার্যক্রম-৫৪টি, মোট উপস্থিতি-৮৮৪জন। ১০ .পরিবেশ/বৃক্ষরোপণ-প্রচারাভিযান ৪১টি, মোট কার্যক্রম-৪১টি মোট উপস্থিতি-৮২৫জন, ১১. পারসভা-সভা ০৮টি, মোট উপস্থিতি-৮২জন। ইউনিয়ন পরিষদের পরিকল্পনা সভা-৩০টি, উপস্থিতি-৪৩৮জন। ১২. ভিসিএ কর্মশালা- প্রচারাভিযান ০৯টি, উপস্থিতি-১৬৮জন। ১৩. সামাজিক ও শান্তি সম্প্রীতি আলোচনা সভা ২৯টি, মোট উপস্থিতি-৩০৪জন। ১৪. স্বাবলম্বি দল আলোচনা সভা ২৯টি, মোট উপস্থিতি-৫০৯জন। মোট কার্যক্রম প্রচারাভিযান-২০৩, আলোচনা সভা-১৩৬ এবং উঠানবৈঠক-১৪৯১টি সর্বমোট কার্যক্রম-১৭৭৬টি এবং সর্বমোট উপস্থিতি-৩৩৭৭৯জন। (তথ্য সূত্র: এমআইএস)

প্রতিবেদন প্রস্তুত
শাহীনা আক্তার
নারীর ক্ষমতায়ন ইউনিট

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.