করোনাভাইরাস মুক্ত গ্রাম গড়ার প্রত্যয়ে নারী নেত্রী ছেনুয়ারা বেগম।

আতঙ্কনয়, সচেতনতায় সম্ভব করোনাভাইরাস প্রতিরোধ এ প্রত্যয় নিয়ে বিকশিত নারী নেটওয়াকের্র নারী নেত্রী এবং গ্রাম উন্নয়ন কমিটির অন্যতম সক্রিয় সদস্য ছেনুয়ারা বেগম।

কক্সবাজার জেলার চকরিয়া প্রত্যন্ত  উপকূলীয় উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামে বসবাস করেন তিনি। এই গ্রামের মানুষ পূব থেকেই শিক্ষা স্বাস্থ্যসচেতনতায় পিছিয়ে আছেন।  করোনারভাইনাসের  এই মহামারীতে নিজ উদ্যোগে গ্রামের অন্য নারীনেত্রীদের সাথে আলোচনা করে সর্বপ্রথম সচেতনতা জাগরণের জন্য এগিয়ে আসেন। শুরুতে গ্রামের লোকজন ছেনুয়ারার কথার গুরুত্ব ছিল না, তারপরও কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। সচেতনতামূলক কাজে লিফলেট বিতরণ করেন, বার বার সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার কথা, মাস্ক ব্যবহারের কথা, মাস্ক ব্যবহারের পদ্ধতি, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা থাকা, সামাজিক শারীরিক দূরত্ব মেনে চলার কথা বলেন। নিজ উদ্যোগে ১০০টি ডেটল সাবান ১০০জন নারীদের এবং ২০টি মাস্ক বিতরণ করেন। নিজ গ্রামে জীবাণুনাশক পানি ছিটান।

এছাড়া প্রতিনিয়ত গ্রামের প্রতিটি বাড়িতে গিয়ে নিজেদের বাড়িতে সাবান পানি (হ্যান্ড স্যানিটাইজার) রাখার ও হাত ধৌয়ার বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করেন। ছেনুয়ারার এই ধরণের কাজে প্রথমে সকলে হাসাহাসি করলেও এখন সবাই ছেনুয়ারাকে মহৎ কাজের জন্য প্রশংসা করছেন। ছেনুয়ারার মতে গ্রামের এই ক্রান্তিলগ্নে যদি আমাদের মতো গ্রামের সকল নারী-পুরুষ সচেতন থাকে তাহলে আমাদের গ্রামে কখনো কোন মহামারী আসবেনা। আর গ্রাম থাকবে নিরাপদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.