সাংগঠনিক কাঠামো

বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের সাংগঠনিক কাঠামো :
সাধারণ সদস্য পদ :
‘নারী নেতৃত্ব বিকাশ’ বিষয়ক তিনদিনের ফাউণ্ডেশন কোর্স সফলভাবে সম্পন্নকারী এবং পরবর্তী মাসিক ফলোআপ কর্মশালা/প্রশিক্ষণে ধারাবাহিকভাবে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে সক্রিয় ভূমিকা রাখবে এবং নেটওয়ার্কের ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্র মেনে চলার অঙ্গীকার করবে তারা বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের প্রাথমিক সদস্যপদ লাভ করবেন। প্রাথমিক সদস্য ফি জনপ্রতি ২০ টাকা।

image 1

ইউনিয়ন কমিটি :
কোন ইউনিয়নে ন্যূনতম ৭ জন সাধারণ সদস্য থাকলে, সেখানে ইউনিয়ন কমিটি  গঠিত হবে। একজন সভাপতি, একজন সহ-সভাপতি, একজন সম্পাদক, একজন সহ-সম্পাদক, একজন অর্থ সম্পাদক এবং দুইজন নির্বাহী সদস্য নিয়ে এই কমিটি গঠিত হবে। এর বাইরে অন্যান্যরা সাধারণ সদস্য হিসেবে পরিচিত হবেন। কমিটির মেয়াদ হবে দুই বছর। ইউনিয়ন কমিটি প্রতি মাসে কমপক্ষে একবার সভায় মিলিত হবে। কোন কারণে পদশূন্য হলে কমিটি তা পূরণ করতে পারবে।
উপজেলা কমিটি :
প্রতিটি ইউনিয়ন কমিটি থেকে কমপক্ষে এক/দুই জন প্রতিনিধি উপজেলা কমিটির জন্য নির্বাচিত হয়ে আসবেন। নির্বাচিত ইউনিয়ন প্রতিনিধিসহ উপজেলা সদরে অবস্থানরত নারী নেত্রীদের নিয়ে  উপজেলা কমিটি গঠিত হবে। একজন সভাপতি, একজন সহ-সভাপতি, একজন সম্পাদক, একজন সহ-সম্পাদক, একজন অর্থ সম্পাদক এবং ষোল জন নির্বাহী সদস্য নিয়ে এই কমিটি গঠিত হবে।  এর বাইরে অন্যরা সাধারণ সদস্য হিসেবে পরিচিত হবেন। কমিটির মেয়াদ হবে দুই বছর। উপজেলা কমিটি প্রতি মাসে কমপক্ষে একবার সভায় মিলিত হবে। কোন কারণে পদশূন্য হলে কমিটি তা পূরণ করতে পারবে।
জেলা কমিটি:
প্রতিটি উপজেলা কমিটি থেকে কমপক্ষে এক/দুইজন প্রতিনিধি জেলা কমিটির জন্য নির্বাচিত হয়ে আসবেন। এভাবে উপজেলা পর্যায় থেকে নির্বাচিত হয়ে আসা প্রতিনিধিগণসহ জেলা সদরে অবস্থানরত নারীনেত্রীদের নিয়ে জেলা কমিটি গঠিত হবে। জেলা কমিটি  ১১- ১৫ জন  সদস্য নিয়ে গঠিত হবে। একজন সভাপতি, দুইজন সহ-সভাপতি, একজন সম্পাদক, দুইজন সহ-সম্পাদক, একজন অর্থ সম্পাদক এবং চার থেকে আটজন নির্বাহী সদস্য নিয়ে এই কমিটি গঠিত হবে। জেলা কমিটির মেয়াদ হবে দুই বছর। জেলা কমিটি প্রতি দু’মাস অন্তর সভায় মিলিত হবে। কোন কারণে পদশূন্য হলে কমিটি তা পূরণ করতে পারবে।

জাতীয় কমিটি:
জাতীয় কমিটি হবে বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের সর্বোচ্চ সাংগঠনিক কাঠামো। নেটওয়ার্কের মৌলিক নীতি নির্ধারণী সিদ্ধান্ত সমূহ এই কমিটিতে গৃহীত হবে। নেটওয়ার্কের দৈনন্দিন কার্যক্রম পরিচালনাসহ সামগ্রিক কার্যনির্বাহের জন্য জাতীয় কমিটির একটি কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি থাকবে। কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির মোট সদস্য এগারজন। কোন কারণে পদশূন্য হলে কেন্দ্রীয় কার্যনিবার্হী কমিটি তা পূরণ করতে পারবে।

কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যবর্গ (১১ জন) এবং প্রতি জেলা কমিটি থেকে একজন করে প্রতিনিধিসহ (৬৪ জন) সর্বমোট ৭৫ জনের সমন্বয়ে জাতীয় কমিটি গঠিত হবে। জেলা কমিটির সভাপতি বা সম্পাদক বা জেলা কমিটি মনোনীত অন্য কোন সদস্য জাতীয় কমিটিতে জেলার প্রতিনিধিত্ব করবে।

বছরে একবার জাতীয় কমিটির সভা হবে। সাধারণভাবে ৩০ দিন এবং বিশেষ জরুরি অবস্থায় ১৫ দিনের বিজ্ঞপ্তিতে জাতীয় পরিষদের সভা ডাকা যাবে। জাতীয় কমিটির মেয়াদ হবে দুই বছর।
কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি :
জাতীয় কমিটির পক্ষে কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি নেটওয়ার্কের দৈনন্দিন কার্যক্রম পরিচালনাসহ সামগ্রিক কার্যনির্বাহের জন্য মূল উদ্যোগী ভূমিকা ও দায়-দায়িত্ব পালন করবে। এই কমিটি সংগঠনের মৌলিক নীতিমালাসমূহের আলোকে সংগঠন পরিচালনার জন্য কর্মকৌশল ও কর্মসূচি নির্ধারণ করবে। একজন সভাপতি, একজন সহ-সভাপতি, একজন সম্পাদক, একজন সহ-সম্পাদক, একজন কোষাধ্যক্ষ এবং ছয় জন নির্বাহী সদস্যের সমন্বয়ে সর্বমোট এগার সদস্যবিশিষ্ট হবে এই কমিটি। কোন কারণে পদশূন্য হলে কমিটি তা পূরণ করতে পারবে।
দি হাঙ্গার প্রজেক্টের নারী উন্নয়ন সেল এর দায়িত্বপ্রাপ্ত বা অন্য কোন নির্ধারিত কর্মকর্তা পদাধিকার বলে বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করবেন। অন্যান্য পদসমূহের নেতৃবৃন্দ হবেন নির্বাচিত। প্রতি চার মাসে কমপক্ষে একবার কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভা হবে। সাধারণভাবে ১০ দিন এবং জরুরি ক্ষেত্রে পাঁচ দিনের বিজ্ঞপ্তিতে সভা আহবান করা যাবে।